Home মতামত কঠিন করোনাকাল এবং মেয়র সাদিক

কঠিন করোনাকাল এবং মেয়র সাদিক

আলম রায়হান:

চলমান করোনাকালে গোটা বিশ্ব নাজেহাল। প্রতিবেশী ভারত প্রায় শ্মশানভূমি। গণচিতা স্থাপন করেও হিন্দু ধর্মালম্বীদের শেষ যাত্রার আনুষ্ঠানিকতা পালন করা কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। এমনকি দাহ করার জন্য সিরিয়ালে রাখা মরদেহ কুকুরে খাবার ছবিও দেখেছে বিশ্ববাসী। হায় ভবিতব্য।

প্রতিবেশি ভারতের চিতা যখন অহরনিশ জ্বলছে, তখন বাংলাদেশের গোর খোদকরা ক্লান্ত হয়ে পড়লেও, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আছে বলে মনে করা হচ্ছে। প্রাপ্ত পরিসংখ্যান তাই বলে। এতেই শ্বস্তি। কিন্তু অশ্বস্থির বিষয় হচ্ছে, ঈদের পরের সম্ভাব্য পরিস্থিতি নিয়ে। করোনা ভাইরাসের ভারতীয় ধরনের অনুপ্রবেশ এবং ঈদ উপলক্ষে অসংখ্য মানুষের ঘরেফেরার তান্ডবে পরিস্থিতি কোথায় নিয়ে যায় তা বলা কঠিন। তবে এটা সহজেই অনুমান করা চলে, ঈদ সামনে রেখে মানুষের যে বাঁধভাঙ্গা জোয়ার সৃষ্টি হয়েছে তাতে করোনার তৃতীয় ঠেউ দরজায় কড়া নাড়ছে বলে, এ আশংকা অনেকেরই। হয়তো তখন বাংলাদেশ হযে যাবে মিনি ভারত। যেমন নেপাল হয়েছে। এক কথায়, পরিস্থিতি হতে পারে ভয়াবহ, অকল্পনীয়।

উদ্ভুত এই পরিস্থিতে দুই দল লোক বেশ নজর কাড়ে। একদল বেকুপ ধরনের বেপরোয়া। এরা বিবেচনায়ই নেয় না, বিশ্বে একটা ভয়াবহ মহামারী চলছে। যাতে মৃত্যুর সংখ্যা ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে। এবং মৃত্যুর মিছিল চলমান। আর একদল মানুষ আছে। এরা নন্দলাল! তারা খুবই সাবধানী। ঘরের বাইরে পা পর্যন্ত ফেলে না। বরীন্দ্রনাথের ভাষায় ‘ঘরের বাইরে এক পা ফেলিয়া একটি ঘাসের ডগায় একটি শিশির বিন্দু’ দেখার অবস্থায়ও নেই তারা। এরা করোনাকালে ঘরবাসী। কেবল নিজেকে নিয়ে উব্দিগ্ন। অন্যকে নিয়ে ভাববার সময় নেই এখন তাদের। হয়তো ছিলোও না কখনো।

উল্লেখিত দৃশ্যপটের বাইরে তৃতীয় একটি ধারা কিন্তু আছে। যাদের হৃদয়ে বিপন্ন মানুষের দুরবস্থা ধরা দেয়। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রয়েছেন এর শীর্ষে।আর করোনাকালে যারা প্রধানমন্ত্রীকে অনুকরণ ও অনুস্মরণ করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন তাদের মধ্যে বরিশালের মেয়র সেরিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ বেশ আলোচনায় আছেন।

এবারের করোনাকাল বলে কেবল নয়, গতবার, প্রথম দফা করোনার ঠেউয়ে মানুষ যখন দিশেহারা তখন দিশারী হয়ে পাশে দাঁড়িয়েছিলেন বিসিসি মেয়র। সে সময় মেয়রের সহায়তা পৌছেগিয়েছিলো স্বল্প আয়ের মানুষের ঘরেঘরে। কড়া নাড়ার শব্দে দরজা খুলে মেয়রের সহায়তা পেযে অনেকে আবেগে আপ্লুত হয়েগেছেন।

গতবার মেয়র সাদিক দাঁড়িয়েছিলেন প্রধানত প্রচলিত ধারায় অস্বচ্ছল মানুষের পাশে। এবার তিনি দাঁড়িয়েছেন, সকল পেশা ও শ্রেনরি মানুষের পাশে। আমজনতা থেকে শুরু করে ইমাম-সাংবাদিক-সংবাদপত্র-উকিল, সকলের পাশে এবার দাড়িয়েছেন মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। বিশেষ করে সংবাদপত্রের পাশে তিনি যেভাবে দাঁড়িয়েছেন তা এক কথায় নজিরবিহীন।

অনেক সংবাদপত্রই ধরেনিয়ে ছিলো, ইতিপূর্ প্রকাশিত বিসিসি’র বিজ্ঞাপনগুলোর বিল আর পাওয়া যাবে না। ‘মায়ের ভোগে’ যাওয়া বলে একটা কথা আছে! কিন্তু ঘটনা ঘটলো বিপরিত। মঙ্গলবার, ১১ মে, দুপুরের পর বরিশালের পত্রিকাগুলোতে সিটি করোরেশনের ফোন আসা শুরু হলো। বিলের চেক সংগ্রহ করার জন্য।

ঈদ সামনে রেখে সংবাদপত্রগুলোর কথা ভোলেননি মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ। বলাই বাহুল্য, বরিশালের সংবাদপত্রগুলো খুবই কঠিন সময় অতিক্রম করছে। সাংবাদিক-সংবাদপত্র কর্মী-মালিক, সম্ভবত সবচেয়ে বিপন্ন শ্রেনীতে পরিনত হয়েছেন। বাইরে থেকে যাই মনে হোক, বরিশালের সংবাদপত্রের ভিতরটা খুবই নাজুক। এ অবস্থায় ঈদের প্রাক্কালে এক চেকে বকেয়া বিলগুলো পাওয়াটা একটি বড় ঘটনা। এবং এটি নিশ্চয়ই হয়েছে, মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহর বিশেষ উদ্যোগে। যেভাবে প্রায় ভগ্নদশা থেকে নান্দনিক রূপ পেয়েছে বরিশাল রিপোর্টার্স  ইউনিটি ভবন। ধন্যবাদ মাননীয় নগর পিতা, সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

এইচএসসি পাসেই চাকরি দিচ্ছে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতাল

দখিনের সময় ডেস্ক: ইসলামী ব্যাংক হাসপাতাল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। প্রতিষ্ঠানটি কম্পিউটার অপারেটর পদে একাধিক জনবল নিয়োগের জন্য এ বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে। ১০ জুলাই থেকেই আবেদন...

এপেক্সে নিয়োগ, পাবেন পিক অ্যান্ড ড্রপসহ অনেক সুবিধা

দখিনের সময় ডেস্ক: এপেক্স ফুটওয়্যার লিমিটেড নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। প্রতিষ্ঠানটির ই-কমার্স (মার্কেটিং) বিভাগ এক্সিকিউটিভ পদে জনবল নিয়োগের জন্য এ বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে। ০৯ জুলাই থেকেই...

বেশি এমএএইচ মানেই কি ভালো ব্যাটারি? যা বলছেন বিশেষজ্ঞরা

দখিনের সময় ডেস্ক: বাজার থেকে নতুন ফোন কেনার সময় একজন ক্রেতা পরীক্ষা করে থাকেন তার ফোনে কত এমএএইচের ব্যাটারি ইনস্টল করা আছে। সাধারণত বেশি এমএএইচের...

রাতে আম খেলে কী হয়?

দখিনের সময় ডেস্ক: এখন আমের সময়। বাহারি নাম ও স্বাদের আম পাওয়া যাচ্ছে বাজারে। সেসব আমের স্বাদ না নিলে কি হয়! আম-দুধ দিয়ে ভাত খাওয়া...

Recent Comments